Header Ads

বাংলাদেশের আশা, ভারতের সঙ্গে ম্যাচের আগে সুস্থ হয়ে উঠবেন মাহমুদউল্লাহ!

আগামী মঙ্গলবার এজব্যাস্টনে ভারতের মুখোমুখি হওয়ার আগে বাংলাদেশ চাইবে তাদের বিশ্বস্ত মিডল অর্ডার ব্যাটসম্যান মাহমুদউল্লাহ চোট সারিয়ে উঠুন।


আফগানিস্তানের বিরুদ্ধে জয় হাসিল করে সেমিফাইনালে যাওয়ার আশা এখনও বাঁচিয়ে রেখেছে বাংলাদেশ। এই নিয়ে সাতটা ম্যাচ খেলে তিনটে জিতল তারা।

আফগানিস্তান ম্যাচে ব্যাট করার সময়ই কাফ্ মাসলে টান ধরে মাহমুদউল্লাহর। ফিজিও থিয়ান চন্দ্রমোহনের পরিচর্যার পর আবার মাঠে নামতে পারেন তিনি। সাতাশ রানে আউট হয়ে যাওয়ার পর দ্বিতীয়ার্ধে আর ফীল্ড করতে নামেন নি। হাসপাতালে স্ক্যান করে জানা যায় পেশি সামান্য ছিঁড়েছে, ডাক্তারি ভাষায় যাকে বলে গ্রেড ওয়ান টেয়র।

চন্দ্রমোহন জানান, "ভাগ্যক্রমে মাহমুদউল্লাহর পেশির চোটটা খুব সিরিয়স নয়। আগামী কয়েক দিনে কতটা উন্নতি হচ্ছে, তার ওপর আমরা নজর রাখব। তার পরেই বোঝা যাবে পরের ম্যাচে ও খেলতে পারবে কিনা।" টিম ম্যানেজার খালেদ মাহমুদ সুজনের বিশ্বাস, আগামী এক সপ্তাহে পুরোপুরি সুস্থ হয়ে ভারতের বিরুদ্ধে নামতে পারবেন মাহমুদউল্লাহ।

"মানছি এটা গ্রেড ওয়ান টেয়র, কিন্তু আমাদের তো আর কালকেই ম্যাচ খেলতে হচ্ছে না। হাতে এখনও পুরো এক সপ্তাহ আছে। খেলতে পারবেই এরকম দাবি করছি না, তবে ৫০-৫০ চান্স আছে। আগামী কয়েক দিন কিরকম থাকে দেখা যাক। মাহমুদউল্লাহ দলের একজন গুরুত্বপূর্ণ সদস্য। ইন্ডিয়ার সঙ্গে খেলার আগে ঠিক হয়ে যাবে মনে হচ্ছে," মাহমুদ বলেন।

অধিনায়ক মাশরাফি মুর্তজাকেও আশাবাদী শোনায়। "মোটামুটি সেরে উঠলেই ও ভারতের বিরুদ্ধে নেমে পড়বে। শারীরিকভাবে যদি কিছুটা দুর্বলতা থাকেও, সেটা ও মানসিক শক্তি দিয়ে পুষিয়ে দেবে।"

গত বিশ্বকাপে বাংলাদেশের অন্যতম নায়ক ছিলেন মাহমুদউল্লাহ। ইংল্যান্ড আর নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে সেঞ্চুরি করে দলকে কোয়ার্টারফাইনালে পৌঁছে দিয়েছিলেন। তার আগে দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে যে-ম্যাচটা তারা জেতে, তাতে মাহমুদউল্লাহর ৩৩ বলে ৪৬এর জোরে বাংলাদেশ ৩৩০ রান তোলে।

অলরাউন্ডার হিসেবে দলে ঢুকলেও এই বিশ্বকাপে মাহমুদউল্লাহ একেবারেই বল করেন নি। তার কারণও অবশ্য আছে। বিশ্বকাপে আসার ঠিক আগে এমআরআই স্ক্যানে তাঁর কাঁধের পেশিতে গ্রেড থ্রি টেয়র ধরা পড়ে।

No comments

Theme images by Storman. Powered by Blogger.